শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন

৩য় স্ত্রীর পাহারায় কিশোরী ধর্ষণ-আটককৃত ধর্ষক জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 স্ত্রীর পাহারায় ১৪ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ১৯ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে ময়মনসিংহ নগরীর স্থানীয় কৃষ্টপুর এলাকা থেকে জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি হোসেন আলী (৫০)-কে আটক র‍্যাব-১৪ এর একটি চৌকশ দল। পরে আটককৃত জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি হোসেন আলীকে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় হস্তান্তর করে।

অভিযোগ পত্রের তথ্যমতে জানা গেছে যে, ময়মনসিংহ নগরীর স্থানীয় কৃষ্টপুর এলাকায় প্রায় প্রতিদিনই হোসেন আলীর ওই কিশোরীর ভাড়া বাসায় আসা-যাওয়া ছিল। পারিবারিক সম্পর্কের এক পর্যায়ে গত ১৫ জানুয়ারী সকালে জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি কথিত হোসেন আলীর ৩য় স্ত্রী তামান্না বেগম ওই কিশোরীকে তাদের ঘরে ডেকে নেন। পরে একটি কোমল পানীয়র সাথে ঘুমের ঔসধ সেবন করান। কিছুক্ষণ পর ওই কিশোরী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে হোসেন আলী তাকে ধর্ষণ করে সেই সাথে ওই ধর্ষণের ভিডিও তার ৩য় স্ত্রী মোবাইলে ধারন করে। পরের দিন সকালে আবারও তামান্না বেগম ওই কিশোরীকে ডেকে নেন এবং যথারিতী স্বামীকে দিয়ে ধর্ষণ করান। তবে এবার তামান্না বেগম আর ভিডিও করেননি তিনি ঘরের দড়জা বন্ধ করে দিয়ে বাহিরে বসে স্বামীর ধর্ষণ করাকে পাহারা দিচ্ছিলেন।

অভিযোগ পত্রে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে, ধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়া দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ওই কিশোরীকে লাগাতার ৫ মাস ধর্ষণ করেন জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির কথিত সভাপতি হোসেন আলী। এই দেখে ওই কিশোরী তার মাকে সব ঘটনা খুলে বললে তারা মান-সন্মানের ভয়ে ওই ভাড়া বাসা ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়। কিন্তু সেখানেও নিস্তার দেয়নি জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির কথিত সভাপতি হোসেন আলী। সেখানে তিনি অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের দিয়ে এলাকায় মহড়া ভুক্তভুগী ওই কিশোরীকে অপহরণ করে হত্যার হুমকি দেয়। পরে গতকাল রবিবার ভুক্তভুগী ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে হোসেন আলী ও তার ৩য় স্ত্রী তামান্না বেগমকে আসামি করে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা করেন।

এদিকে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে বলেন-অভিযুক্ত হোসেন আলীকে র‍্যাব-১৪ আটক করে থানায় সোপর্দ করেছেন। 

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ