শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৯ পূর্বাহ্ন

যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে খুন-ঘাতক স্বামী আটক

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

যৌতুকের দাবীতে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার রূপসী ইউনিয়নের বিহারাঙ্গা গ্রামে রিতা আক্তার (২৭)-নামের গৃহবধূকে গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে তার ঘাতক স্বামী দেলোয়ার হোসেন (৩৫) মারপিট করেন। মারপিটের এক পর্যায়ে রিতা আক্তার মাটিতে লুটে পড়ে মৃত্যুবরন করেন। ২২ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে রিতা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ঘাতক দেলোয়ার হোসেনকে আটক করেছে ফুলপুর থানা পুলিশ।

দেলোয়ার হোসেন ফুলপুর উপজেলার রূপসী ইউনিয়নের বিহারাঙ্গা গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা সাইফুল ইসলমের ছেলে ও রিতা আক্তার নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলার ভোলার পলিশা গ্রামের মোঃ ইব্রাহিম খানের মেয়ে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন বসেন-মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী রিতা আক্তারকে তার স্বামী দেলোয়ার হোসেন মারপিট করেন। মারপিটের এক পর্যায়ে রিতা আক্তারের মৃত্যু হলে মারপিটের বিষয়টি আড়াল    করতে রিতা আক্তার ষ্ট্রোক করে মারা গেছে বলে ঘাতক দেলোয়ার হোসেন চিৎকার করতে থাকেন। দেলোয়ারের চিৎকারে স্থানীয় এলাকাবসী আসলে রিতা আক্তারে তারা মৃত দেখতে পায়। বুধবার সকালে তাড়াহুড়া করে লাশ দাফনের চেষ্টা করলে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে ঘাতক দেলোয়ার হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন পালিয়ে যায়।

পুলিশ নিহতের কপালে ও পিঠে জখমে চিহ্ন দেখতে পায়। পরে ময়নাতদন্তের লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এদিকে নিহত রিতা আক্তারের ছোট মেয়ে আনিকা (৬)-ক জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পায় যে, দিন-রাত ঘাতক রিতা আক্তারকে দেলোয়ার হোসেন মারধর করতো।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ