শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন

মৃত ব্যক্তির লাশের মূল্য মাত্র ২ লাখ টাকা

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২১

মৃত লাশের মূল্য মাত্র ২ লাখ টাকা। কি বিশ্বাস হচ্ছে না-তো? প্রিয় পাঠক এমনটা ঘটেছে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে। গত রবিবার বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী আছর উদ্দিন (৬৮)-নামের এক বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী গফরগাঁও পল্লী বিদ্যুতের খুঁটির নীচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিলে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ভালুকা-২, গফরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দসহ স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল ঘটনার পর থেকেই স্থানীয় উত্তেজিত এলাকাবাসীকে শান্ত রাখার তৎপরতা চালায়। এরা সবাই এক সাথে মিলে নিহত ওই হতদরিদ্র পরিবারকে নানা ধরনের ভয়ভীতি দেখায়। পরে নিহতের পরিবারকে ২ লাখ টাকা দিয়ে বিষয়টি সেখানেই মিটমাট করে ফেলে। সেই সাথে গত সোমবার রাত ৯টার দিকে নিহত বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী আছর উদ্দিনের লাশ দাফন করা হয়।

স্থানীয় এলাকবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে যে, ভালুকা-গফরগাঁও-খুরশীদমহল ব্রীজ সড়কের হাটুরিয়া মোড় থেকে ৪ কিঃমিঃ পল্লী বিদ্যুৎ সঞ্চালনের কাজ চলছে। যা মাহির এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজটি করছেন। গত রবিবার বিকাল নাগাৎ ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি বিদ্যুতের খুঁটি স্থাপন করেন। খুঁটিগুলো দেড় থেকে দুই ফুট গর্ত করে স্থাপন করা হয়। যদিও টেন্ডারের শর্ত অনুযায়ী খুঁটিগুলো ৬ ফুট গর্ত করে স্থাপন করার কথা ছিল। এ ধরনের অনিয়মকে কেন্দ্র করে স্থানীয় এলাকাবাসী কম গর্তে খুঁটি স্থাপন করা নিয়ে কথা বললে গফরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ অফিস কেন্দ্রিক ঠিকাদারের লোকজনসহ স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলকে সাথে নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসীকে নানা ধরনের ভয়ভীতি দেখায়।

গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে নিহত বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী আছর উদ্দিন গরু নিয়ে বিদ্যুতের খুঁটির সামনে দিয়ে মাঠে যাওয়ার সময় হুড়মুড়িয়ে বিদ্যুতের খুঁটি তার শরীরের উপর পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। পরে ঘটনাস্থলে গফরগাঁও পুলিশ এসে একটি ক্রেন জব্দ করে থানায় নিয়ে যায়। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ বিষয়ে নিহতের ছেলে শাহাবুদ্দিন (৪৪) ও জামাল (৩১) কোন কথা বলতে মানা করে দেন।

এদিকে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ভালুকা-২ এর এজিএম মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেন-এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে বিস্তারিত বলা যাবে।

অপর দিকে গফরগাঁও থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন-নিহতের পরিবার স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ ও পল্লী বিদ্যুতের লোকজনকে সাথে থানায় এসে আপোষনামা দেওয়ায় থানায় কোন মামলা হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ