মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩২ পূর্বাহ্ন

বয়স্ক ভাতা আসে ঠিকই কিন্তু ভাতার টাকা যায় ইউপি মেম্বারের পকেটে

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহঃ-

মোঃ আনিসুর রহমান বয়স প্রায় ৮০ ছুঁই ছুঁই। তিনি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ১০নং শেরপুর ইউনিয়নের মেরাকোনা গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে। তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবুল মনসুর বরাবর বয়স্ক ভাতার কার্ড তার নামে থাকা সত্ত্বেও প্রতিবার সেই টাকা চলে যায় ১০নং শেরপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বর জসিম উদ্দিন বাবুলের মোবাইলে। আর এর প্রতিকার চেয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর এমনটাই অভিযোগ করেছেন তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবুল মনসুর স্টার বাংলা ২৪ টিভিকে বলেন-মোঃ আনিসুর রহমানের কাছ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগটি আমি আমলে নিয়ে দ্রুত তদন্তের জন্য সমাজসেবা কর্মকর্তাকে বলেছি। এই ঘটনার মিল খুঁজে পেলে অবশ্যই আমি আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে আনিসুর রহমান বলেন-সম্প্রতি আমি জানতে পারি আমার নামে নাকি বয়স্ক ভাতার কার্ড হয়েছে। আর এই কার্ডের ১ম কিস্তি ৩ হাজার ও ২য় কিস্তি ১৫১০ টাকা একটি মোবাইল নম্বরে এসেছে। অথচ আমার নামে কার্ড হলেও ভাতার টাকা পাচ্ছে আরেকজন। এরপর আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি আমার বয়স্ক ভাতার টাকা পাচ্ছে ইউপি মেম্বর জসিম উদ্দিন বাবুল। পরে তার সাথে যোগাযোগ করলে শুধু দিবো-দিচ্ছি বলে সান্তনা দিচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে আনিসুর রহমান বলেন-আমি মুখসুক্ষ মানুষ লেখাপড়া জানিনা তাই বয়স্ক ভাতার আবেদন ফরম জমা দেওয়ার সময় মেম্বারকে সাথে নিয়ে গিয়েছিলাম। আমার নাম-ঠিকানা ঠিক রেখে মোবাইল নম্বরের জায়গায় মেম্বর তার মোবাইল নম্বর দিয়েছিল। এখন তার নম্বারে আমার বয়স্ক ভাতার টাকা আসে।

বিষয়টি জানতে ১০নং শেরপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বর জসিম উদ্দিন বাবুলের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ