শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:০২ পূর্বাহ্ন

বহিরাগতদের অত্যাচারে অথিষ্ঠ নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভূগছেন নিরাপত্তাহীনতায়

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৪ অক্টোবর, ২০২১

বহিরাগতদের প্রবেশাধীকার নিষিদ্ধ থাকার কথা থাকলেও সেখানে চলছে বহিরাগতদের অবাধ বিচরন। হল ক্যাম্পাস থেকে শুরু করে এমন কোন জায়গা নেই যে, সেখানে বহিরাগতদের বিচরন নেই। একমাত্র খেলার মাঠটিও এখন চলে গেছে বহিরাগতদের দখনে। যতই দিন যাচ্ছে ততই বাড়ছে বহিরাগতদের আনাগোনা। সেই সাথে স্থানীয় এলাকার প্রভাব খাটিয়ে সাধারন শিক্ষার্থীদের করছে হয়রানি। আর এ সবই হচ্ছে প্রশাসনের সঠিক দৃষ্টিপাতের অভাবে। বলছি ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা।

একটি সূত্র বলছে, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আবাসিক এলাকা থেকে শুরু করে সব জায়গাতেই রয়েছে বহিরাগতদের আনাগোনা। ফলে ক্যামপাসে মাদক সেবন, চুরি-ছিনতাইসহ ইভটিজিংয়ের মত ঘটনাও ঘটছে। এছাড়াও বহিরাগতদের কাছে অনেক শিক্ষার্থীরা হামলারও স্বীকার হচ্ছেন।

আরেকটি সূত্র বলছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের সাড়া এলাকাতেই বহিরাগতদের চলাফেরার কারনে সর্বদাই জনসমাগম হয়ে থাকে। এছাড়াও এখন আবার যোগ হয়েছে মটর সাইকেলের উচ্চ গতিতে এদিক-সেদিক ছুটাছোটি। আর এইসব দেখ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মনে এক ধরনের আতংক বিরাজ করছে।

বহিরাগতদেষ অনুপ্রবেশ নিয়ে আমাদের কথা হয় জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টোর ডঃ উজ্জল কুমার প্রধানের সাথে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন-জরুরী কোন কারন ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের প্রবেশ সম্পূর্ণ রূপে নিষেধ। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ এবং অবাধে চলাফেরা নিয়ন্ত্রনে জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি রয়েছে সর্বোচ্চ অবস্থানে। এছাড়াও প্রতিদিন রাতে দু’জন সহকারী প্রক্টোরসহ বাড়তি নিরাপত্তা প্রহরীরা টহলরত অবস্থায় রয়েছে। কোথাও কোন অপ্রিতিকর অবস্থা বা সন্দেহজনক আবস্থার সৃষ্টি হলে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কাজেই এতো নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকতে বহিরাগতের প্রবেশ অন্ততঃ এটা বিশ্বাস হচ্ছে না বলে হেসে বিষয়টা উড়িয়ে দিলেন জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টোর ডঃ উজ্জল কুমার প্রধান।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ