শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন

টাকা ফেরত না দেয়ায় হত্যা করা হয়েছিল সেই দর্জিকে

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯

নষ্ট মোবাইল বিক্রির টাকা ফেরত না দেয়ায় দরজি মনোয়ারুলকে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে আসামি আব্দুর রহিম।

রোববার বিকেলে জেলা ডিবি পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) আলতাফ হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আব্দুর রহিমের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, ১৯ ডিসেম্বর দরজি মনোয়ারুলের কাছ থেকে পুরনো একটি মোবাইল এক হাজার টাকায় কেনেন আব্দুর রহিম। মোবাইলে চার্জ না হলে মনোয়ারুলের কাছে টাকা ফেরত চান তিনি। কিন্ত মনোয়ারুল টাকা দিতে অস্বীকার করে।

পরে ১৯ ডিসেম্বর রাতে মুন্সিপাড়ার কেরামতিয়া মসজিদের দক্ষিণ পাশের একটি নির্মাণাধীন ভবনে জুয়া খেলছিলেন আব্দুর রহিম ও মনোয়ারুলসহ চার থেকে পাঁচজন। সেই খেলায় দুই হাজার ৫০০ টাকা জিতেন মনোয়ারুল। এ সময় আবারো মোবাইলের টাকা ফেরত চাইলে আব্দুর রহিম ও মনোয়ারুলের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ঢালাইয়ের একটি অংশ নিয়ে মনোয়ারুলের মাথা, কপাল ও মুখে উপর্যুপরি আঘাত করে আব্দুর রহিম। এতে তিনি মারা যান।

তিনি আরো জানান, মনোয়ারুল হত্যাকাণ্ডের মামলায় আব্দুর রহিম, কালাম, মাহিনুর রহমান, আসাদুল ইসলাম, রেজাউল করিম বাবু, ও মোকছেদ আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ