শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় পৌর নির্বাচনী জেরে পাল্টাপাল্টি হামলায় গুলিবিদ্ধসহ আহত- ১১

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১
কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের জের ধরে দুই কাউন্সিলর সমর্থকদের পাল্টাপাল্টি হামলায় ছাত্রলীগ নেতাসহ চারজন ছররা গুলিতে আহত হয়েছে। এ ছাড়া ধারালো অস্ত্রের আঘাত ও পিটুনিতে আহত হয়েছে আরও অন্তত ৭ জন। 
গতকাল বুধবার (৬ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের পুরাতন জনতা মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  
আহতরা হলেন, রুবেল, ছাবের, রানা, সাইফুল ইসলাম বাবু, রাজিব, সাহেদ, মাহিন, ফয়সাল, মিরাজ, সাইফুল ও সাজ্জাদ। এদের মধ্যে রুবেল ও সাজ্জাদ হোছাইনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। 
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সদ্য সমাপ্ত পৌরসভা নির্বাচনে ছাত্রলীগ নেতা ২নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত কাউন্সিলর সাইফুল ইসলামের পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় কাজ করেছিলেন। এ ঘটনার জেরে ওই রাতে দু’পক্ষের তর্কবিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি ও পাল্টা ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু হলে তাৎক্ষণিক পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  
সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল করিম বলেন, ঘটনার সময় আমি এলাকার বাইরে ছিলাম। আহত সাজ্জাদ নির্বাচনের পর থেকে আমার সমর্থকদের মারধর ও হুমকি দিয়ে আসছিল। বুধবার রাতেও হুমকি দিলে দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও পরে গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটে। এতে ছররা গুলিবিদ্ধসহ আমার পক্ষের ৯ জন আহত হয়। এই হামলায় কাউন্সিলর সাইফুল নেতৃত্ব ঘটনা ঘটেছে বলে দাবী করেছেন।
নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদ পৌরসভা নির্বাচনের সময় আমার পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় অংশ গ্রহণ করেছেন। এজন্য সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল করিম পরিকল্পিতভাবে সাজ্জাদসহ আমার সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়েছে।  
চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ জুয়েল ইসলাম বলেন, হামলায় দু’পক্ষের ১১ জন আহত হয়েছে। পুলিশি টহল জোরদার করায় পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে দু’পক্ষই থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ