মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় উৎসবের মুখর পরিবেশে ৮ ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন 

রাজু দাশ, চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১
কক্সবাজারের চকরিয়ায় প্রশাসনের কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে উপজেলার ৮ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। ভোটগ্রহন শেষে গণনার পর ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন মোহনায় স্ব স্ব রিটার্নিং কর্মকর্তা এসব ফলাফল ঘোষণা করেন।
ঘোষিত ফলাফলে এসব ইউনিয়নে যাদেরকে বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত করা হয়েছে তারা হলেন, ডুলাহাজারা ইউনিয়নে হাসানুল ইসলাম আদর বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস, হারবাং ইউনিয়ন (নৌকা ) মেহরাজ উদ্দিন মিরাজ,
বরইতলি ইউনিয়ন (জামায়াত ইসলামী) মোহাম্মদ ছালেকুজ্জামান চশমা, ফাঁসিয়াখালি ইউনিয়ন (নৌকা) হেলাল উদ্দিন হেলালী, চিরিংগা ইউনিয়ন স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল হোসেন চৌধুরী আনারস,
খুটাখালী ইউনিয়ন (জামায়াত ইসলামী) মাওলানা আব্দুর রহমান মোটরসাইকেল, বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন মন্জুরুল কাদের নৌকা।
এরমধ্যে সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে কোন প্রতিদ্বদ্ধী প্রার্থী না থাকায় ওই ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আজিমুল হক আজিম বিনা প্রতিদ্বদ্ধীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়।
জানা যায়, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ ইউনিয়নে সংরক্ষিত নারী ও পুরুষ সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। অপর সাত ইউনিয়নে যথারীতি সকল পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরমধ্যে ফাঁসিয়াখালী ও ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণ করা হয়। অপর ছয় ইউনিয়নে ( হারবাং, বরইতলী, সুরাজপুর-মানিকপুর, বমুবিলছড়ি, খুটাখালী ও চিরিঙ্গায় ) ব্যালেটে ভোট গ্রহণ করা হয়। সুরাজপুর-মানকিপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদ ছাড়া এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৭ জন, সাধারণ মেম্বার পদে ৩ শত ৫৫ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১ শত ২জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ৮টি ইউনিয়নে ১ লাখ ৩১ হাজার ৬৪৮ ভোটার রয়েছেন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৮ হাজার ৮৬৩ জন
চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী মাঠে দুইজন জুড়িসিয়াল ও ২৪ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের তত্বাধানে উপজেলার ৭২টি ভোট কেন্দ্রে ভোটের দিন নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছে পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব ও আনসারসহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় ৩ হাজার সদস্য। অপরদিকে, ভোট কেন্দ্র গুলোতে ৪ জন রির্টানিং কর্মকর্তার ভোট গ্রহণে দায়িত্ব পালন করছেন ৭২ জন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, ৩৪০ জন সহকারি প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও ৬৮০ জন পোলিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করে ছিলেন। 
ইউপি নির্বাচনের সম্বনয়ক ও চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ বলেন, ৮ ইউনিয়নে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন, সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করা হয়েছে। শান্তিপুর্ণ পরিবেশে একটি অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবধরণের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছিল বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো সংবাদ